Wednesday , June 16 2021

বান্ধবীকে শাওনের সাথে বিয়ে দিতে গিয়ে নিজেই করে ফেললেন বিয়ে

ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে প্রথম আলো ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে ১৪ ফেব্রুয়ারি তিনটি আলাদা আলাদা পর্বে প্রচারিত হয় সিবিএল মানচি চাংকি চক নিবেদিত ‘ভালোবাসার দিনে ভালোবাসার গল্প সিজন–৩’। এই আয়োজনে মাহিয়া মাহির উপস্থাপনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শহীদুজ্জামান সেলিম ও রোজী সেলিম, মীর সাব্বির ও ফারজানা চুমকি এবং সৈয়দ জামান শাওন ও মুমতাহিনা টয়া দম্পতি।
বিয়ের পর সৈয়দ জামান শাওন ও মুমতাহিনা টয়া দম্পতির প্রথম ভালোবাসা দিবস। উপস্থাপক মাহিয়া মাহি এ দম্পতিকে নামের অংশবিশেষ নিয়ে টয়ন (যৌথ নাম) উপাধি দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করেন।

কীভাবে মন জয় করেছেন, এ প্রশ্ন দিয়েই শুরু হয় ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে প্রথম আলো ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারিত সিবিএল মানচি চাংকি চক নিবেদিত ‘ভালোবাসার দিনে ভালোবাসার গল্প সিজন–৩’ অনুষ্ঠান।

টয়া ও শাওনের প্রথম পরিচয় হয়েছিল একটা সিরিয়াল করতে গিয়ে। ওই মেগা সিরিয়ালে শাওন ও টয়ার দৃশ্য ছিল মাত্র একটা। আর ডায়লগও ছিল একটা। সেখানে শাওন টয়াকে বলেছিলেন, ‘প্রেম করে বিয়ে করে কেউ সুখী হতে পারে নাই।’ কিন্তু সে ডায়লগকে মিথ্যা প্রমাণিত করে তাঁরা এখন সুখী দম্পতি। বিয়ের পর ওই দৃশ্য ভাইরাল হয়ে যায়।

তবে দুজনের প্রেমটা শুরু হয়েছিল আরও দুই বছর পর। ‘গোধূলিবেলা’ নাটকের একটি দৃশ্য করতে গিয়ে প্রথমে ছবি বিনিময়। এরপর মেসেজ আদান-প্রদান। তবে বড় রহস্যটা তখনো বাকি। টয়া শাওনকে এক বান্ধবীর সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার জন্য ব্যবস্থা করতে থাকেন। কিন্তু ঘটনাক্রমে কক্সবাজার বেড়াতে গিয়ে আস্তে আস্তে ঘনিষ্ঠতা এবং পূর্ণিমারাতে প্রেমের শুরু।

তবে কে প্রথম ‘লাভ ইউ’ বলেছিলেন, মাহির প্রশ্নের উত্তরে শাওনের সরল স্বীকার উক্তি, ‘আমিই প্রথম টয়াকে প্রথম ভালোবাসার কথা বলেছি।’ তবে ভালোবাসার কথা জানালেও প্রেম না করেই সরাসরি বিয়ে প্রস্তাব দেন শাওন। টয়া প্রথমে রাজি না হলেও শাওন ওই বান্ধবীকে বিয়ের জন্য প্রপোজ করার আগমুহূর্তেই রাজি হয়ে যান টয়া। এভাবেই শুরু শাওন-টয়ার সংসার।

Leave a Reply