ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল | Is Forex Trading Halal | ফরেক্স ট্রেডিং কি বাংলাদেশে বৈধ ?

ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল : ” ফরেক্স ট্রেডিং কি“-  এ নিয়ে আমার ওয়েবসাইটে অলরেডি একটি আর্টিকেল পাবলিশ করা আছে।

সেই আর্টিকেলে ফরেক্স ট্রেডিং কি এবং কিভাবে ফরেক্স ট্রেডিং কাজ করে, সে নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

তো সেই আর্টিকেলে এর পর আমার মনে হল  যে,  ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম এই নিয়ে বিস্তারিত একটা আর্টিকেল লিখি।

তো আজকে আমি মূলত এ বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

যদি আপনি ফরেক্স ট্রেনিং দিয়ে আগ্রহী হয়ে থাকেন এবং আপনার মনে যদি প্রশ্ন জেগে থাকে যে ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম তাহলে আজকের পুরো লেখাটা মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

তাহলে এই বিষয়ে আপনি পূর্ণাঙ্গভাবে জানতে পারবেন।

তবে ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম (Is Forex Trading Halal) সে বিষয়ে জানার আগে আপনাকে কিছু কথা বলতে চাই।

সেটি হল আজকে আমি যে তথ্যগুলো শেয়ার করব সেগুলো বিভিন্ন সোর্স থেকে নেওয়া হয়েছে।

অর্থাৎ আমি নিজেও সরাসরি ফরেক্স ট্রেডিংয়ের সঙ্গে যুক্ত না। তাহলে আর দেরি কেন চলুন সরাসরি মূল আলোচনায় ফিরে যাওয়া যাক।

Forex Trading কি ? (What is Forex Trading?) 

সবার শুরুতেই আপনাকে জেনে নিতে হবে যে ফরেক্স ট্রেডিং কি।  কারণ যখন আপনি জানতে পারবেন যে ফরেক্স ট্রেডিং কাকে বলে তখন আপনার পরবর্তী আলোচনা গুলো বুঝতে সুবিধা হবে।

তো চলুন এবার তাহলে জেনে নেয়া যাক যে ফরেক্স ট্রেডিং কাকে বলে।

ফরেক্স ট্রেডিং কে সংক্ষেপে Fx Market বলা হয়ে থাকে। তবে ফরেক্স ট্রেডিং কে যদি  বিদেশি মুদ্রার লেনদেন কাকে বলা হয় তাহলে কোন প্রকার ভুল হবেনা।

কারণ এটি হল এমন এক ধরনের মার্কেট যেখানে এক দেশের  কারেন্সি কে অন্য দেশের কারেন্সি তে  রূপান্তর করার জন্য অর্থের আদান-প্রদান হয়ে থাকে।

চলুন বিষয়টি উদাহরণ দিয়ে বলার চেস্টা করি।  যেন আপনার বুঝতে সুবিধা হয়।

যেমন ধরুন আপনি একজন বাংলাদেশী নাগরিক।  এবং আমাদের বাংলাদেশে এক ডলার সমান ৮০-৮৫/- টাকা।

এখন আপনি যদি আট হাজার টাকা প্রদান করেন তাহলে এই টাকার বিনিময়ে আপনি 100 ডলার কিনতে পারবেন।

ঠিক এই ভাবে আপনি  8000 টাকার বিনিময় 100 ডলার কিনতে পারেন এটা মূলত ফরেক্স ট্রেডিং এর মাধ্যমে করা সম্ভব।

আর ফরেক্স ট্রেডিং মার্কেটগুলোতে এভাবে  প্রতিনিয়ত  ডলার কেনা বেচা হয়ে থাকে।

ফরেক্স ট্রেডিং কি বাংলাদেশে বৈধ ?

আপনি জানলে অবাক হয়ে যাবেন কারণ বর্তমান সময়ে ফরেক্স ট্রেডিংয়ের জনপ্রিয়তা বিপুল হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তবে এই জনপ্রিয়তার  দিক বিবেচনা করে আপনার মনে একটা প্রশ্ন জাগতে পারে।

সেটি হল ফরেক্স ট্রেডিং কি বাংলাদেশের জন্য বৈধ নাকি অবৈধ।  তো চলুন এবার তাহলে এই বিষয়ে একটু ধারণা নেয়া যাক।

যদি আপনি অতীতের দিনগুলোর কথা চিন্তা করেন তাহলে সেই সময় কিন্তু ফরেক্স ট্রেডিং নিয়ে বাংলাদেশের তেমন কোনো আইন ছিলো না।

কিন্তু গত কয়েক বছর আগে বাংলাদেশ একটি নতুন আইন জারি করে, যেখানে বলা ছিল যে ফরেক্স ট্রেডিং বাংলাদেশের জন্য সম্পূর্ণ অবৈধ।

সেই আইনে বলা ছিল যে যারা স্বয়ংসম্পূর্ণ ভাবে ফরেক্স ট্রেডিংয়ের সঙ্গে যুক্ত কিংবা যারা ফরেক্স ট্রেডিং নিয়ে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আর সেই কারণে বাংলাদেশের কোন ব্যাংক থেকে ফরেক্স ব্রোকারে ডলার ডিপোজিট করার মতো কোনো সুযোগ নেই।

তবে এরপরও বাংলাদেশের অনেক মানুষ এই আইনকে তোয়াক্কা না করে তারা ফরেক্স ট্রেনিং এর সঙ্গে যুক্ত হয়ে আছেন।

আর আপনিও যদি ফরেক্স ট্রেডিংয়ের সঙ্গে যুক্ত হতে চান, তাহলে সেটা সম্পূর্ণ আপনার নিজের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করবে।

এক্ষেত্রে আমার আর্টিকেল অথবা আমার ওয়েবসাইট কোনভাবেই দায়ী থাকবেনা।

ফরেক্স ট্রেডিং কি বাংলাদেশে চালু আছে ?

ফরেক্স ট্রেডিং কি এই আলোচনা থেকে আপনি জানতে পেরেছেন যে,  ফরেক্স ট্রেডিং এর মাধ্যমে এক দেশ থেকে অন্য যে কোন দেশের মুদ্রা কে কিনে নেওয়া সম্ভব।

আর এই কাজগুলো করার জন্য ফরেক্স ট্রেডিংয়ের বিশাল একটা মার্কেট আছে যে মার্কেট কে সংক্ষেপে বলা হয় FX Market.

কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে বাংলাদেশ সরকার এই ধরনের ফরেক্স ট্রেডিং কে কোনভাবেই সমর্থন করে না।

কারণ দেশের অর্থনীতির দায়িত্ব সরকারের তাই  বাংলাদেশ সরকার ফরেক্স ট্রেডিং কে বন্ধ করার জন্য আইনি নির্দেশ প্রদান করেছেন।

আর সেই কারণেই মূলত বাংলাদেশের কোন ব্যাংক ফরেক্স ব্রোকারের মাধ্যমে ডলার ডিপোজিট করার সুযোগ দেয় না।

আর এসব থেকে সহজেই অনুমান করা যায় যে বাংলাদেশে এখনও ফরেক্স ট্রেডিং চালু হয়নি।

ফরেক্স ট্রেডিং করে কিভাবে আয় করা যায় ?

উপরে আমি ফরেক্স ট্রেডিং কি এবং বাংলাদেশের ফরেক্স ট্রেডিং বৈধ নাকি অবৈধ সেই নিয়ে আলোচনা করেছি।

আশা করি এই আলোচনাগুলো আপনি খুব ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। এবার আমি আলোচনা করব আসলে ফরেক্স ট্রেডিং থেকে আয় করার উপায় গুলো কি কি।

চলুন এবার তাহলে সে বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

যেহেতু আপনি ফরেক্স ট্রেডিং সম্পর্কে জানতে এসেছেন সেহেতু আপনার একটা বিষয় অবশ্যই জানা থাকবে যে বৈদেশিক মুদ্রা গুলো সর্বদা পরিবর্তনশীল হয়ে থাকে।

অর্থাৎ এই ডলারের মূল্য গুলো প্রতিনিয়ত শাকসবজির বাজারের মতো ওঠানামা করতে থাকে।

যেখানে আপনি আজকে যদি  কম দামে ডলার কিনতে পারেন।

এবং আপনার কেনা সেই ডলারের দাম যদি পরবর্তী সময়ে বেড়ে যায়, তাহলে আপনি সেখান থেকে যে বেশি দাম পাবেন তার সম্পূর্ণটাই আপনার লাভ।

তো এভাবেই আপনি ডলার  লেনদেন করার মাধ্যমে ফরেক্স ট্রেডিং থেকে আয় করতে পারবেন।

তবে মজার বিষয় হলো ফরেক্স ট্রেডিংয়ের লস হওয়ার তেমন কোনো সম্ভাবনা থাকে না।

ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম (Is Forex Trading Halal)

এতক্ষণের আলোচনায় আমরা ফরেক্স ট্রেডিং নিয়ে অনেক কিছু জানতে পারলাম। তো এবার আমাদের মূল টপিকে ফিরে আসতে হবে।

কেননা Forex Trading কি হালাল নাকি হারাম সেটা জানা আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

তাহলে চলুন এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

যদি আপনি বাণিজ্যিক দিক থেকে বিবেচনা করেন তাহলে বলা যাবে যে ফরেক্স ট্রেডিং হালাল।

কারণ এখানে নগদ অর্থের বিনিময় ডলার লেনদেন করা হলেও এই মার্কেটে আপনি কোন প্রকার সুদ পাবেন না।

আর সেই দিক থেকে বিবেচনা করলে সহজ ভাবে বলা যায় যে,  ফরেক্স ট্রেডিং একটি হালাল বিষয়। তবে ফরেক্স এর ডলার দিয়ে যদি জোয়া খেলেন তবে এটা হালাল থাকবে না।

একটি মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ আছে ঠিক তেমনি ভাবে ফরেক্স ট্রেডিংয়ের ভাল দিক এবং খারাপ দিক আছে।

এখন আপনি অর্থের লোভে কোনটি বেছে নিবেন সেটা সম্পূর্ণ আপনার উপর নির্ভর করবে।

তবে এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে কিভাবে হালাল উপায়ে ফরেক্স ট্রেডিং থেকে টাকা আয় করা সম্ভব।

আসলে এই বিষয়টিকে দু-এক কথার  মাধ্যমে বোঝানো  সম্ভব নয়।  কেননা এই বিষয়টি যেহেতু বড় তাই একটু বিস্তারিত আলোচনা করতে হবে।

ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল ? Is forex trading halal? 

ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক ব্যবসাকে করা হয়েছে হালাল এবং সুদকে করা হয়েছে হারাম।

আর সেই কারণেই সুদ যুক্ত আছে  এমন যেকোন কাজকেই হারামের আওতায় ধরা হয়ে থাকে।

কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে  ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক সুদ হারাম হলেও আজকের দিনে মুসলিম প্রধান অনেক দেশেই সুদের ব্যাপক আদান-প্রদান হচ্ছে।

আর সে কারণেই এমন অনেক মানুষ আছেন  যারা শত চেষ্টার পরেও এই সুদের বেড়াজাল থেকে নিজেকে মুক্ত করতে পারছেন না।

আর সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো ফরেক্স ট্রেডিং এর মত বিশ্বের সর্ববৃহৎ মার্কেটপ্লেসেও বর্তমান সময়ে সুদের ব্যাপক বিস্তার লাভ করেছে।

আর সেই কারণে অনেক ইসলামিক দেশ ফরেক্স ট্রেডিং কে প্রথম দিকে বৈধ বলে ঘোষণা করলেও বর্তমানে একে সম্পূর্ণ অবৈধ হিসেবে গন্য করছে ৷

কারণ ইসলাম কখনই সুদকে বৈধ বলে গণ্য করে না।

তবে ইসলামের এসব বিধি-নিষেধকে আমি সর্বদাই সম্মান করি।

কিন্তু দুঃখজনক বিষয় এটাই যে যারা ফরেক্স ট্রেডিং নিয়ে এমন বিধিনিষেধ তৈরি করেছেন তারা আসলে ফরেক্স ট্রেডিং কে সম্পূর্ণ বুঝতে পারেননি।

কেননা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যেসব কারবার হয় সেগুলো এখনও অধিকাংশ মানুষের কাছে স্পষ্ট নয়।

আর সে কারণেই একেক জন ব্যক্তি একেক রকমের ফরেক্স ট্রেডিংয়ের সংঙ্গা দাড় করিয়ে ফেলেছেন।

আর সেই কারণেই ফরেক্স ট্রেডিং হালাল নাকি হারাম সেটা বোঝার আগে আপনাকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ের কারবার গুলো সম্পর্কে ভালোভাবে বুঝতে হবে।

যখন আপনি এই ফরেক্স ট্রেডিংয়ের কারবার গুলো বুঝতে পারবেন তখন আপনি নিজে থেকেই এটা  জানতে পারবেন যে ফরেক্স ট্রেডিং কি আসলেই হালাল নাকি এটা সম্পূর্ণ হারাম।

আর আপনার মধ্যেই এই বিষয়ে পরিষ্কার ধারণা দেওয়ার জন্য আমি ফরেক্স ট্রেডিং এর কারবার গুলোকে মোট দুইটি ভাগে ভাগ করে আলোচনা করবো।

আর আপনার প্রতি একটা রিকুয়েস্ট থাকবে সেটি হল এর পরবর্তী আলোচনা গুলো একটু হলেও মন দিয়ে পড়ার চেষ্টা করবেন।

নাহলে এই বিষয়ে আপনার অনেক কিছুই অজানা থেকে যাবে।

ফরেক্স ট্রেনিং এর মৌলিক কারবার গুলো কি কি ?

বর্তমান সময়ে এমন অনেক কম সংখ্যক মানুষ আছেন যাদের মধ্যে ফরেক্স ট্রেডিং সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা আছে।

যার ফলে ফরেক্স ট্রেডিং কি এই প্রশ্নটিই আসলেই যে যার মতো করে সংঙ্গা দাঁড় করিয়ে দেয়।

এর ফলাফলে এই ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যে ওরজিনাল কনসেপ্ট আছে। সেটা অনেকের কাছেই অজানা থেকে যায়।

তাই সবার শুরুতে আমি আপনাকে ফরেক্স ট্রেনিং  এর মূল কনসেপ্ট কে বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবো।

যেমন ধরুন, আপনি একজন ব্যবসায়ী মানুষ এবং বাণিজ্যিক কাজে আপনাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দেশে যাওয়ার প্রয়োজন পড়ে।

আর এক্ষেত্রে আপনাকে অনেক সময় বিভিন্ন দেশের মুদ্রার ক্রয়-বিক্রয় করারও প্রয়োজন পড়বে।

আর এক্ষেত্রে আপনি যদি ফরেক্স ট্রেডিং এর মাধ্যমে ডলার-কেনা-বেচা করেন, তাহলেও তা কোনভাবেই অবৈধ বলে গণ্য করা হবে না।

আর এক্ষেত্রে আপনি যদি আজকে একদামে ডলার কিনেছে তা পরবর্তীতে বেশি দামে বিক্রি করেন তাহলেও কিন্তু তার শরীয়ত মোতাবেক  অবৈধতার কাতারে পড়ে না।

কারণ প্রতিটা দেশের কারেন্সি সমান হয় না বরং আলাদা আলাদা দেশের মুদ্রার কারেন্সি আলাদা রকম হয়ে থাকে এবং নিয়মিত পরিবর্তিত হতে থাকে।

যেখানে এই মুদ্রা গুলোর দাম ওঠানামা করাতে আপনার কোন প্রকার হাত নেই।

তাই এসব দিক থেকে বিবেচনা করলে ফরেক্স ট্রেডিং কে কোনভাবেই হারাম এর আওতায় ফেলা ঠিক হবে না।

আর এটিই হল ফরেক্স ট্রেডিংয়ের মৌলিক কারবার যার মাধ্যমে এক দেশের মুদ্রা কে অন্য দেশ থেকে কিনে নেওয়া হয় এবং পুনরায় সেটি বিক্রি করা হয়।

আর এই মৌলিক দিক থেকে বিবেচনা করলে এটা সহজেই বলা যায় যে ফরেক্স ট্রেডিং কোনোভাবেই হারাম নয় বরং এটি একটি হালাল পদ্ধতি।

ইসলামিক দৃষ্টিতে ফরেক্স ট্রেনিং হলো একটি শেয়ার ব্যবসা

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন যারা মূলত ফরেক্স ট্রেডিং কে শেয়ার মার্কেট এর সঙ্গে তুলনা করে থাকেন। কিন্তু মজার বিষয় হল যে এই দুটোই ট্রেডিং মার্কেট হলেও এর মধ্যে রয়েছে বিষদ পার্থক্য।

আর সেই পার্থক্য অনুযায়ী ফরেস্ট ট্রেডিং সম্পূর্ণ ভিন্ন পথে  কাজ করে থাকে। তাছাড়া শেয়ার মার্কেট এর তুলনায় ফরেক্স ট্রেডিং মার্কেট অনেক বেশি সহজ।

তবে ইসলামিক স্কলারগন ফরেক্স ট্রেডিং কে পুরোপুরি বৈধ বলে ঘোষণা করেছেন।

তবে এ বৈধতা ঘোষণা করার পেছনে বিশেষ কিছু কারণ আছে। আমাদের উচিত সেই কারণগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিও। আর সেই কারণগুলো হলোঃ

  1. সবচেয়ে প্রথম কারণটি হলো মুদ্রা কখনোই সুদের  পণ্য হতে পারে না।
  2. দ্বিতীয় যে কারণটি আছে সেটি হল আপনি চাইলে সম্পূর্ণ সুদবিহীন পদ্ধতিতে ফরেক্স ট্রেডিং করতে পারবেন। এবং এই সুবিধাটি আপনি পরের মার্কেটপ্লেস থেকেই ভোগ করতে পারবেন।
  3. তৃতীয় যে কারণটি আছে সেটি হল বিশ্বের প্রতিটা দেশের মুদ্রা হল  সম্পদের ন্যায়। আর প্রতিটা সম্পর্ক মুদ্রাতেই হিসাব করা হয়।

তবে এই কারণগুলো দেখার পর আপনার মনে হতে পারে যে ফরেক্স ট্রেডিং কোনোভাবেই বৈধতা পাওয়ার যোগ্য নয়।

অর্থাৎ পাবলিকদের যত আগ্রহ থাকবে, মুদ্রার দাম ততই বাড়তে থাকবে।

সর্বশেষ সিন্ধান্তে ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম ? 

আর্টিকেল এর শুরু থেকে ফরেস্ট ট্রেনিং নিয়ে অনেক কিছু আলোচনা করা হয়েছে।

সভার শুরুতে আমি আলোচনা করেছি যে ফরেক্স ট্রেডিং কাকে বলে এবং বাংলাদেশ ফরেক্স ট্রেডিং এর বৈধতা আছে কিনা।

তবে এর মধ্যে যে আলোচনাটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ছিল সেটি হলো ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম।

আর এই বিষয়টি আমি বেশ কিছু যুক্তিসঙ্গত কারণ দেখিয়ে আলোচনা করেছে।

তবে এই যুক্তিসংগত কারণ গুলো থেকে আপনি মোট দুই ধরনের যুক্তি কে প্রাধান্য দিতে পারবেন। সেটি হলঃ

  1. একদল মানুষ পাবেন যারা বলবে যে মুদ্রা হলো এক প্রকারের সম্পদ আর মুদ্রা লেনদেন কোন প্রকার সুদের আওতায় পড়েনা।  যে কারণে ফরেক্স ট্রেডিং কে সম্পূর্ণ বৈধ বলে গন্য করা যাবে।
  2. আবার আরেক দল মানুষ পাবেন যারা বলবে যে যেটা হারাম সেটা হারাম ই। অর্থাৎ এখানে একদামে  বেশি দামে বিক্রি করা হয় তাই এটা সম্পূর্ণ অবৈধ এবং এটি একটি হারাম পন্থা।

এখন এই বিস্তারিত আলোচনা থেকে সিদ্ধান্ত আপনাকে নিতে হবে।

এবং আপনাকেই বুঝতে হবে যে ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম।

আর আপনার দৃষ্টিকোণ থেকে এটি হালাল এর পর্যায়ে পড়ে নাকি হারাম এর পর্যায়ে পড়ে তা অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

আমাদের শেষকথা

বর্তমান বিশ্বে ফরেক্স ট্রেডিং হল  সবচেয়ে জনপ্রিয় একটা মার্কেটপ্লেস। আর এই বিষয়ে আমাদের কারো মনে কোন প্রকার সন্দেহের অবকাশ নেই।

তবে সন্দেহের শুরুটা তখনই হবে  যখন আপনার মনের প্রশ্নটি জাগবে যে ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি ফরেক্স ট্রেডিং সম্পূর্ণ হারাম পদ্ধতিতে পরিপূর্ণ।

আর এই বিষয়টি নিয়েই আজকে আমি বিস্তারিত আলোচনা করেছি। এর সাথে সাথে আমি ফরেক্স ট্রেডিং এর সাথে যুক্ত আছে এমন দুই দল প্রকাশ করেছি।

এখানে একদল মানুষ আছেন যারা মূলত ফরেক্স ট্রেডিং কে সম্পূর্ণ বৈধ বলে গণ্য করে।  আরেকদল মানুষ আছেন যারা ফরেক্স ট্রেডিং কি সম্পূর্ণ হারাম হিসেবে গণ্য করে থাকে।

তবে এই দুইজন মানুষের মন্তব্যকে আজকের আর্টিকেলে পরিষ্কার ভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

আর এই আলোচনা থেকে  সকল মন্তব্য গুলো জানার পর সিদ্ধান্ত আপনাকেই নিতে হবে।

এবং সেই সিদ্ধান্তে আপনার কি মনে হয় ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি ফরেক্স ট্রেডিং হারাম তা অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top